সারাদেশে বিরাজমান ধর্ষণ, হত্যাসহ সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের দ্রুত বিচারের দাবীতে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশের মঙ্গলবার দুপুরে একযোগে দেশের বিভিন্ন জেলায় মানববন্ধন কর্মসূচি

তনু ধর্ষন ও নৃশংস হত্যাকান্ডের বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা, সারাদেশে বিরাজমান ধর্ষণ , হত্যাসহ সকল সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের দ্রুত বিচারের দাবীতে দি হাঙ্গার প্রজেক্টের অনুপ্রেরণায় সৃষ্ট স্বেচ্ছাব্রতী ছাত্র সংগঠন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশ আজ ১২ এপ্রিল ২০১৬ কুমিল্লা, ময়মনসিংহ, টাংগাইল, কিশোরগঞ্জ, রাজশাহী, মেহেরপুর, খুলনা, লালমনরিহাট, রংপুর, সিলেট, বি.বাড়িয়া, কক্সবাজার, চট্টগ্রাম ও রাজধানী সহ সারাদেশে ২৫ টি স্থানে মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। সারাদিনের এই কর্মসূচীতে দেশব্যাপী প্রায় ১৫০০ তরুন অংশগ্রহণ করে।

This slideshow requires JavaScript.

রাজধানীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তরুন শিক্ষার্থীরা বেলা ১২ টায় পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্কে এ কর্মসূচী পালন করে। ইউথ ইন্ডিং হাঙ্গার’ জবি ইউনিট এর অর্থসচিব রাকিবুল ইসলামের সঞ্চালনায় সমন্বয় করেন জবি ইউনিটের কো-অর্ডিনেটর মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী শফিকুল ইসলাম শফিক।

এসময় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্টের ঢাকা অঞ্চলের সমন্বয়কারী জনাব মুর্শিকুল ইসলাম। বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইয়ূথ মোবিলাইজেশন টিমের প্রধান জান্নাতুল ফেরদৌস। দেশের বিরাজমান পরিস্থিতির কথা উল্লেখ করে জনাব মুর্শিকুল ইসলাম বলেন,“আমরা কেউ নিরাপদ নেই। দেশে এখন আতঙ্ক বিরাজ করছে।”তিনি আরো বলেন, “তনু হত্যার জন্য যারা লড়াই করছিল তাদের মধ্যে অন্যতম যোদ্ধা জবি ছাত্র নাজিমকে হত্যা করা হয়েছে।” সবাইকে প্রতিরোধ গড়ার আহ্বান জানিয়ে তার বক্তব্য শেষ করেন। জনাব জান্নাতুল ফেরদৌস তনু হত্যাসহ সারাদেশে বিরাজমান খুন – ধর্ষন-সহিংসতা নিরসনের লক্ষ্যে দ্রুত বিচারের দাবী জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *