ঝিনাইদহে ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের উদ্যোগে “মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান”

চারদিকে যখন নারী ক্ষমতায়নের নানাবিধ পদক্ষেপ গ্রহীত হচ্ছে ঠিক তখনি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী সোহাগী জাহান তনু কে গত ২০ মার্চ ২০১৬ কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের কাছে ধর্ষণ এবং নৃশংসভাবে খুন হতে হলো!

দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের অনুপ্রেরনায় সৃষ্ট ইযূথ এন্ডিং হাঙ্গার-বাংলাদেশের আয়োজনে ১১ এপ্রিল ২০১৬ দেশব্যাপী বিরাজমান এসব ধর্ষণ, হত্যাকান্ড ও সকল সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিচারের দাবিতে “মানববন্ধন ও স্মারলিপি প্রদান” কর্মর্সূচি গ্রহন করা হয়েছে।

This slideshow requires JavaScript.

তারই ধারাবাহিকতায় আজ ১২ এপ্রিল ২০১৬ ইযূথ এন্ডিং হাঙ্গার-ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের উদ্যোগে শহরের ফজর আলী গার্লস স্কুল এন্ড কলেজে “মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান” কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।

কর্মসূচিতে সদর ইউনিট প্রধান উপদেষ্টা জনাব এন.এম. শাহ্জালাল, ইউনিট উপদেষ্টা জনাব এম আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, জনাব আসমা জামান, কলেজ অধ্যক্ষ জনাব জয়া রানী চন্দ, সহকারী প্রধান শিক্ষক জনাব কানু গোপাল উপস্থিত ছিলেন। ছাড়াও সুজন, বিকশিত নারী নেটওয়ার্ক, জাতীয় কন্যাশিশু এডভোকেসি ফোরাম সদস্য, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সুশীল সমাজ প্রতিনিধি ও সাংবাদিকসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রায় দুই শতাধিক সচেতন নাগরিক যুক্ত হয়। তারা বিভিন্ন প্লাকার্ডে তনু হত্যার বিচার চাই, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বন্ধ করুন, ধর্ষিতাকে নয়, ধর্ষণকারীকে ঘৃণা করুন ইত্যাদি লেখা নিয়ে মানববন্ধন করে।

মানববন্ধন শেষে শিক্ষক, শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকদের একটি প্রতিনিধিদল ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে সোহাগী জাহান তনুর হত্যাকারীসহ সকল ধর্ষণ ও হত্যাকারীদের বিচারের দাবিতে স্বারকলিপি প্রদান করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *