সামাজিক সচেতনতা সৃষ্টিতে দুর্জয় তারুণ্য

ঝালকাঠিতে মাদক বিরোধী মানববন্ধন ও আলোচনা সভা
‘আমরা হাতে হাত রাখবো, মাদক বিরোধী সমাজ গড়বো’ এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে গত ২৫ জানুয়ারী বেলা ১২টায় বরিশাল অঞ্চেেলর, ঝালকাঠী জেলার কাঠালিয়া থানায় ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার-কাঠালিয়া ইউনিট এর উদ্যোগেএবং ডিস্ক এর সহযোগিতায় আয়োজন করে মাদক বিরোধী মানববন্ধন ও আলোচনা সভা। ।এ খানে উপসি’ত ছিলেন কাঠালিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান জনাব ফারুক সিকদার,  উপজেলা নির্বাহী  কমকর্তা জনাব দেলোয়ার হোসেন মাতুবর, এবং কাঠালিয়া কলেজের প্রভাষক মোঃ ফরহাদ হোসেন। উপসি’ত সকলে মাদক বিরোধী সমাজ গড়তে সর্বাত্মক ভূমিকা রাখবে- এই প্রতিশ্রুতিতে একাত্মতা প্রকাশ করেন অত্র এলাকার ৩৫০ জন নারী-পুরুষ।
রিপোর্ট: আওলাদ রাকিব ।

জাতীয় টিকা দিবসের দ্বিতীয় রাউন্ড পালিত
গত ১১ ফেব্রুয়ারী ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উদ্যোগে জাতীয় টিকা দিবসের দ্বিতীয় রাউন্ড পালিত হয়। কটিয়াদী পৌরসভার ০৯ টি টিকাদান কেন্দ্রে ইয়ূথ সদস্যরা ০-৫ বছরের সকল শিশুকে পোলিও টিকা ও ২-৫ বছর বয়সের শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়। ০৯ টি কেন্দ্রে মোট ১৮ জন ইয়ূথ লিডার এ কাজে নিজেকে সম্পৃক্ত করেন। সদস্যরা হলেন মোজাম্মেল হক , হাকিকত, শফিক, বোরহান, শানত্মা, দিপু, জিন্নাত সুলতানা, তানিয়া, হ্যাপী, ফাতেমা, জেসমিন, সীমা, পিয়াস, ডালিম, মিঠুন, মাছুম ও শ্রাবণ। 
রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক

মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
২৬ মার্চ ২০১২ মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডারদের পক্ষ থেকে গত ২৫ মার্চ রাত ১২.০১ মিনিটে শহীদ মিনারে পুস্প স-বক অর্পন করেন । এসময় উপসি’ত ছিলেন আহবায়ক মো: বুরহান উদ্দিন, সদস্য সচিব হৃদয়  খান,সদস্য সাজেদুর রহমান মো: আমিনুল ইসলাম রুমন, রবিন আহমেদ, শহীদ নূর আহমেদ, জাকারিয়া আহমেদ, একে এম মুহিম , তাওফিপ মনোয়ার, হাসান, রাজিব রকি প্রমূখ ।
রিপোর্ট: রবিন আহমেদ।

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী ইয়ূথ বন্ধুদের ইংরেজী বর্ষবরণ উদযাপন
নতুন বছরে নতুন নতুন চিন-া-চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে কাজের নতুন মাত্রা যোগ করে সবাই। সকলেই পুরাতন বছরের গ্লানি মুছে দিয়ে বরণ করে নেয় নতুন বছরকে। নতুন বছরের আগমনী বার্তা সকলের মুখে মুখে, নতুন মাত্রায়, নতুন চেতনায়। সবারই উদ্দেশ্য থাকে নতুনের আগমনী বানে  বেশে সবাই একত্রিত হয়ে কাজ করার। এই চেতনায় উজ্জীবিত হয়ে ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উদ্যোগে নানা আয়োজনে ইংরেজী বর্ষবরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হলো। কটিয়াদী আদর্শ বিদ্যানিকেতনে অনুষ্ঠিত এই জমজমাট আয়োজনে প্রধান অতিথি ছিলেন উজ্জীবক ও মেন্টর হাবিবুর রহমান (বর্ণালী)। এদিন সকল ইয়ূথ বন্ধুরা তাদের কাজের বর্তমান অবস’া, অগ্রগতি ও ভবিষ্যত ভাবনা তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে কটিয়াদী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত ইয়ূথ বন্ধুরা গান পরিবেশন করেন। আয়োজনটি সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সমপন্ন করতে যারা নিবেদিত ভূমিকা রাখেন, তারা হলো হাকিকত , জিন্নাত সুলতানা, শফিক , মোজাম্মেল হক , বোরহান উদ্দিন ও বায়জীদ হোসেন জীবন ।
রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক

সিলেটে  নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতকরণে মানববন্ধন
ইয়ূখ এন্ডিং হাঙ্গার সিলেট শাহপরাণ ইউনিটের উদ্যোগে গত ২৭ মার্চ ২০১২ নিরাপদ সড়ক এর পক্ষে একটি র‌্যালী ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিটের সদস্যরা নির্দিষ্ট দিনে শাহপরাণ উচ্চ বিদ্যালয়ের নিকট সমবেত হয়। বিদ্যালয় ছুটি হলে সদস্যরা স্কুলের সকল শিক্ষক শিক্ষার্থীদের মাঝে নিরাপদ সড়ক সম্পর্কিত লিফলেট বিতরণ করে এবং তাদের র‌্যালীতে আসার আহবান জানাই। আহবানে সাড়া দিয়ে অনেক শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা র‌্যালীতে অংশগ্রহন করে। র‌্যালীটি শাহপরাণ স্কুল হতে শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদিক্ষণ করে উপজেলা চত্ত্বরে শেষ হয়। র‌্যালী শেষে একই অংশগ্রহনকারীদের অংশগ্রহনে শুরু হয় মানব বন্ধন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত এ মানববন্ধনে অংশ নেওয়া  সুধীনেরা  যেমন শাহপরান উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান  প্রমূখ  বলেন নিরাপদ সড়কের জন্য আজকের এই র‌্যালী ও মানববন্ধন আয়োজনকারী সংগঠন  ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার অবশ্যই প্রশংসা পাবার যোগ্য, কিন’ এ দায়িত্ব আমাদের সবার। সড়ক নিরাপদ হলে আমরা সকলে নিরাপদ। একটি দূর্ঘটনা একটি মানুষের জীবনে অনেক ক্ষতি বয়ে আনতে পারে। তাই নিরাপদ সড়কের জন্য আজকের এই আয়োজন যেন এখানেই থেমে না যাই আগামী দিনে নিরাপদ সড়ক তৈরিতে যারা সবচেয়ে বড় বড় ভূমিকা রাখতে পারে তাদেরকেও এই আয়োজনে যাতে যুক্ত করা যায় সেই আহবান রাখেন বক্তরা। অনুষ্ঠানটি সমন্বয় করেন এ্যাকটিভ সিটিজেনস সহায়ক কৃশ দেবনাথ মোহন । 
রির্পোট ঃ কৃশ দেবনাথ মোহন

কটিয়াদীতে বসন- বাতাসে ছড়িয়েছিল ইয়ূথদের ভালোবাসার রেণু
গত ১৩ ফেব্রুয়ারী বসনে-র প্রথম প্রহরে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী ইয়ূথ বন্ধুরা সোটাম রঙ্গের পাঞ্জাবী , হলুদ শাড়ী পরিহিত অবস’ায় কটিয়াদী ডিগ্রী কলেজ বটতলা চত্ত্বরে অতিবাহিত করলো এ দিনটিকে। এ দিনে কটিয়াদী উপজেলার ইউনিটের বন্ধুরা বিভিন্ন ইয়ূথ বন্ধুদের স্বাগত জানান। কটিয়াদী উপজেলা সমন্বয়ক মোজাম্মেল হকের সঞ্চালনায় দ্বিতীয় পর্বে বসন-বরণ উপলক্ষ্যে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা হয়। এতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন নাঈম, বোরহান , শফিক ও মোজাম্মেল হক।
এরপর ১৪ ই ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার ঋতুরাজ বসন- ছিল  প্রকৃতিতে বিরাজমান। এমন দিনে কোকিলের মন উদাস করা কুহু ডাকে এবং গাছের নতুন পুষ্প-পল্লবের মনোহরি রূপে প্রিয় মানুষটির জন্য মন উচাটন হয়ে উঠবে না তা হতেই পারে না। সময় এখন মনের গহিনে লুকিয়ে থাকা ভালোবাসার অনুভুতি প্রকাশের। আর এই অনুভুতি প্রকাশের মোক্ষম সুযোগ এসেছিল বিশ্ব ভালবাসা দিবসে। কিশোরগঞ্জ কটিয়াদীর ইয়ূথদের বাতাসে এদিন ছড়িয়েছিল ভালোবাসার পরাগরেণু। আর ইয়ূথ বন্ধুরা ভালোবাসার সে পরাগরেণুর প্রলেপ মেখে মিষ্টি সাজে নিজেদের সাজিয়েছিল। লাল,নীল বিভিন্ন বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়ে ভালোবাসায় নিমগ্ন ছিল তরুণ প্রাণ। ভালোবাসায় ভরা একটি দিন যে কত মধুর হতে পারে গতকাল তাহা কটিয়াদী সরকারী হ্যাচারী কমপ্লেক্সের ছায়া ঘেরা নীবিড় সবুজ পল্লীতে এসে দেখা গিয়েছিল। এদিনে তানিয়া , শাহাদাত হোসেন মিঠুন, আরিফাতুল জান্নাত পুষ্প, আরিফুল ইসলাম,  বৃষ্টি, মুন্নী , চম্পা,সাথী, সাবিনা , স্বর্ণা , কোহিনূর , হাকিকত , জিন্নাত সুলতানা, শফিক , মোজাম্মেল হক , বোরহান উদ্দিন , বায়জীদ হোসেন জীবন , তারেক রহমান মওলা নেচে গেয়ে দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখেন।
রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক

সাতক্ষীরায় সচেতনতামূলক শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান
“শহীদ মিনারে জুতা পড়ে ওঠা যাবে না” এই দাবী নিয়ে ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১২ পাটকেলঘাটা হারুন-অর-রশিদ ডিগ্রি কলেজ মাঠে ১০জন ইয়ূথ সদস্যকে নিয়ে একটি শপথ গ্রহণ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয় । উক্ত কার্যক্রমে উপসি’ত ছিলেন অধ্যাপক সুব্রত কুমার দাশ। তিনি বলেন নিজেদের স্বচেতন করতে হবে তবেই দাবি বাস-াবতার রুপ পাবে। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ইয়ূথ লিডার অধীশ দাশ, বিশ্বজিৎ ঘোষ, হোসনে আরা ও মিতু ।

আমিরাবাদ হাই স্কুল ইউনিটের উদ্যোগে শীত বস্ত্র বিতরণ
গত ১৩ জানুয়ারী শুক্রবার সকাল ১০ টায় ফরিদপুর-সদরপুর উপজেলার ইয়ুথ এন্ডইং হাঙ্গার-আমিরাবাদ ফজলুল হক পাইলট ইনস্টিটিউশন ইউনিট গরিবদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরন করে। তারা গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে গিয়ে পুরাতন শীতের কাপড় সংগ্রহ করে এবং তা পরিস্কার করে শীতার্থ  মানুষের মাঝে বিতরণ করে। এই ব্যাপারে ইউনিটের প্রধান উপদেষ্টা ও ফজলুল হক পাইলট ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক আবুল কালাম মোল্লা বলেন আমরা এই আয়জনকে স্বাগত জানাই। আমাদের এই ইউনিটটি দেশের মডেল ইউনিট হিসেবে পরিচিত হবে। সংগঠক হাজ্জাজ মিয়া বলেন আমরা  নতুন যুগের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্ব- স্ব- অবস’ান থেকে এই দেশের জন্য কিছু করতে চাই যা আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে ভালো কিছু পেতে সাহায্য করবে। কার্যক্রম শেষে ইউনিট এর কোঅরডিনেটর আজাদ আল মারুত ও জুগ্ন কোঅরডিনেটর মোঃ মহিউদ্দিন বলেন আমরা আগামি ১৯ জানুয়ারী কর্মশালা এবং ২৬ জানুয়ারী দেওয়াল পত্রিকা প্রকাশ সহ ফেব্রুয়ারী মাসে বিভিন্ন সামাজিক কাজের আয়োজন করব। এই সময় বিভিন্ন পত্রিকার প্রতিনিধিগণ উপসি’ত ছিলেন।

রিপোর্ট: হাজ্জাজ

কটিয়াদীতে আমরা করব জয় প্রকাশনা শেয়ারিং
গত ১৬ মার্চ ২০১২ শুক্রবার ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উদ্যোগে আমরা করব জয় শেয়ারিং অনুষ্ঠিত হয়। এতে ৭৩ তম সংখ্যার কটিয়াদী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিট থেকে প্রাপ্ত রিপোর্ট আমরা করব জয় সংখ্যায় প্রকাশ ও পরবর্তীতে আরো কিভাবে সমৃদ্ধ এবং দৃষ্টান-মূলক প্রতিবেদন দেওয়া যায় সে ব্যাপারে আলোচনা হয়। প্রকাশনার প্রতিবেদনগুলোর গুলোর আলোকে তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়। এতে কটিয়াদী উপজেলা ইউনিট, আদর্শ বিদ্যানিকেতন ইউনিট ও পাইলট বালক উচ্চ বিদ্যালয় ইউনিটের ৪০ জন সদস্য উপসি’ত ছিলেন। উক্ত আয়োজনটি সমন্বয়ে সহযোগিতা করেন ইয়ূথ লিডার হাকিকত , জিন্নাত সুলতানা, শফিক , মোজাম্মেল হক , বোরহান উদ্দিন ও  বায়জীদ হোসেন জীবন ।
রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক

সাতক্ষীরায় ছবি আঁকা ও আবৃত্তি বিষয়ক কর্মশালা
গত ২৭ মার্চ স্বাধীনতা দিবসকে কেন্দ্র করে পাটকেলঘাটা হারুন-অর-রশিদ ডিগ্রি কলেজ ইউনিটের উদ্যোগে সোনামনি কেজি স্কুল  অঙ্গনে ছবি আঁকা ও আবৃত্তি শিক্ষণ বিষয়ক কর্মশালার আয়োজন করা হয়। উক্ত কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে উপসি’ত ছিলেন মো ঃ আনারুল ইসলাম , রঘু রায় চৌধুরী ও ইয়ূথ লিডার অধীশ দাশ। উল্লেখ্য, এই কর্মশালায় ৪৫ জন শিশু অংশ গ্রহণ করে।                                  

সাতক্ষীরায় এইচ,এস,সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান
গত ২৫ মার্চ পাটকেলঘাটা হারুন-অর-রশিদ ডিগ্রি কলেজ ইউনিটের বন্ধুদের এইচ,এস,সি পরীক্ষা উপলক্ষ্যে বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয় কলেজ প্রাঙ্গনে। অনুষ্ঠানে উপসি’ত ছিলেন প্রভাষক উৎপল মন্ডল ও সুব্রত কুমার দাশ। তারা পরীক্ষার্থী ইয়ূথ সদস্যদের দিক নির্দেশনা মূলক উপদেশ দেন। পরে কলম, স্কেল ও মিষ্টি মুখ করানো হয় ১৫ জন ইয়ূথ সদস্যক। কার্যক্রমটি সফল ভাবে বাস-বায়নে ভূমিকা রাখে ইয়ূথ লিডার অধীশ দাশ।

সিলেটে নিরাপদ সড়ক চাই নিশ্চিতকরণে এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডারদের উদ্যোগে র‌্যালী মানববন্ধন ও আলোচনাসভা
ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশ ও এ্যাকটিভ সিটিজেনসের একদল ইয়ূথ লিডার যারা নিজেদের স্বেচ্ছাব্রতী কাজের মাধ্যমে সমাজের উন্নয়নে নিজেদের  অতিবাহিত করছে। তারা বিশ্বাস করে, একটি স্বতন্ত্র দেশের জন্য যৌবন হল আশার মৌসুম, কর্মপ্রচেষ্টা এবং শক্তি । ডব্লিউ. আর. উলিয়াম এর এই উৎসাহ ও  প্রেরণামূলক কথায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার- শাহপরাণ ইউনিট ও এ্যাকটিভ সিটিজেনসের ১৪০ সদস্যের সকল ইয়ূথরা দেশের উন্নয়নে ও বর্তমান সমস্যা নিরসনে ২০১১ সালের শুরুর দিক থেকে কাজ করে আসছে। তারা তাদের কাজের ধারাবাহিকতায় গ্রামে গ্রামে ছুটে নিরক্ষর মানুষকে শিক্ষাদান ও বিভিন্ন সমস্যার জরিপ করে তার সমাধান করে আসছে। দেশের অন্য সকল ইয়ূথদের মত তারাও সর্বপ্রথম ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার বাংলাদেশ এর সংস্পর্শতায় আসে এবং এই সংগঠন সম্পর্কে জানে যা তাদের নিজেদের সামাজিক দায়বদ্ধতা বোধগম্যতার সিড়ি একধাপ এগিয়ে নিয়ে আসে। বিগত কয়েক মাস আগে তারা দেশের একটি অনাকাঙ্খিত সমস্যা নিরসনে সামনের দিকে এগিয়ে আসে যা হল “সড়ক দূর্ঘটনা”। এই সমস্যাটির কারণে গোটা বাংলাদেশে হাজার হাজার প্রাণ মুকুলেই ঝরে যাচ্ছে এবং এই সমস্যাটি তাদের প্রাণে দোলা দেয় এবং মর্মাহত করে। এই সমস্যা নিরসনে তারা স’ানীয়ভাবে ড্রাইভারদের  গাড়ি চালানো সর্ম্পকে ও স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের নিরাপদে কিভাবে সড়কে চলাচল করা যায় তা নিয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যায়। তাদের এই কার্যক্রমকে আরো বেগবান করার লক্ষ্যে জাফলং সহ অনান্য ইউনিটগুলোর ইয়ূথদের পরিকল্পনা অনুযায়ী যৌথ কর্মসূচী আয়োজন করে। গত ১৭ মার্চ ২০১২ সকাল ১১ টায় র‌্যালী, মানবন্ধন ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের সিলেট জেলার প্রেসিডেন্ট সাহ মোঃ আহাদ আলী  এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন আমির মিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক  মো: বকুল । এরপূর্বে স’ানীয়ভাবে আমাদের সমস্যা সমাধান ও সচেতন করার লক্ষ্যে এলাকায় সচেতনতা সৃষ্টিতে লিফলেট বিতরণ, পোষ্টারিং, পথনাটক এর মাধ্যমে মানুষকে গণজাগরণ করা হয় । এরপর গত ২৭ মার্চ ২০১২ তারিখে শাহপরাণ তামাবিল সড়কে একটি বিরাট র‌্যালী ও মানববন্ধন সফলভাবে সম্পন্ন হয়। উক্ত র‌্যালী ও মানবন্ধনে স’ানীয়ভাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবং চেয়ারম্যানের সর্বাত্মক সহোযোগিতা তারা পায়। এছাড়াও স’ানীয়ভাবে সকল জনগণ এই সকল কার্যক্রম ভবিষ্যতে চালিয়ে যাওয়ার জন্য সকল ইয়ূদের উৎসাহিত করেন। নিরাপদ সড়ক চাই উদ্দেশ্যে র‌্যালী ও মানববন্ধন এ প্রায় স’ানীয় ২৫০ এরও অধিক ইয়ূথ ও উক্ত এলাকার সকল জনগণ উপসি’ত ছিলেন। আমাদের এই সকল কার্যক্রম সফল  করায় যারা নিরলসভাবে কাজে করছেন তাদের কয়েকজন হলেন – অশিন, ইমা, সুমন, মৌ, এরশাদ, মাসুক, তামান্না, মুনিসা, রীনা, মঞ্জুমা, শাহাব, আফসানা  সহ আরো অনেকে। বর্তমানে আমাদের এই কার্যক্রমের ফলে স’ানীয়ভাবে মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি ও সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা বোধ বিস-ার লাভ করেছে।
রিপোর্ট: মোহন
কিশোরগঞ্জে ইয়ূথদের উদ্যোগে পরিচালিত ১০ম ব্যাচের মাসব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ
গত ০৩ ফেব্রুয়ারী ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার ও এ্যাকটিভ সিটিজেন তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা কলেজ ইউনিট এর উদ্যোগ দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ ও লাইফ লাইন কম্পিউটার একাডেমীর সহযোগিতায় তাড়াইল প্রেসক্লাবে ১০ম ব্যাচের কম্পিউটার প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা কলেজ হিসাববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মনোরঞ্জন তালুকদার।  বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন তাড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জনাব নাজমুল হক আকন্দ, সুজন-তাড়াইলের সম্পাদক ও উজ্জীবক বাবু রবীন্দ্র সরকার ও যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম ভুইয়া । প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন  ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে অগ্রণী সৈনিক হতে হলে কম্পিউার শিক্ষার কোন কিকল্প নাই। আর এরকম মত কাজেরই সূচনা  হলো আজ তাড়াইলে। উল্লেখ্য, এই প্রশিক্ষণের শূভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন সজুন-তাড়াইলের সভাপতি জনাব সুলতান উদ্দিন ভুইয়া। ।
প্রশিক্ষণ শেষে গত ২১ মার্চ ২০১২ তাড়াইল উপজেলা হলরুম মিলনায়তনে প্রশিক্ষণার্থীদের সনদ বিতরণ করা হয় । সুজন-তাড়াইল উপজেলা কমিটির সহ-সভাপতি মনোরঞ্জন তালুকদারের সভাপতিত্ব সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব জহিরুল ইসলাম । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন তাড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জনাব নাজমুল হক, জনাব আবুল কালাম ভূইয়া, রবীন্দ্র সরকার ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-কিশোরগঞ্জ জেলা সমন্বয়কারী খায়রুল বাশার রাসেল। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন: আজকের তরুণরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে কাজ করবে, তারই সফল বাস-বায়ন হলো এই কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে। আজকের সনদপ্রাপ্ত এই ৩৫ জন শিক্ষার্থী এখন অফিস পরিচালনায় দক্ষ, তারাই ডিজিটাল বার্তা পৌঁছে দিবে দেশের মানুষের কাছে। উক্ত প্রশিক্ষণে প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন ইয়ূথ একটিভিষ্ট মোজাম্মেল হক , ওবায়দুল্লাহ আকন্দ ভুবন ও হাকিকুল ইসলাম। প্রশিক্ষণটি আয়োজনে বিশেষভাবে ভুমিকা পালন করেন বাবু রবীন্দ্র সরকার ও শরীফুল আলম (সুমন) এবং সার্বিক সহযোগিতা করেন ইয়ূথ লিডার পাপিয়া, হালিমা, জিন্নাত সুলতানা, শফিক, বোরহান উদ্দিন, বায়জীদ হোসেন জীবন । সর্বশেষে মিষ্টিমুখের মাধ্যমে সমাপনী ও সনদপত্র বিতরণী অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে সভাপতি সাহেব সমাপ্তির ঘোষণা করেন।

রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক

জ্ঞান অর্জনে বই দিয়ে বই পড়ি লাইব্রেরির নতুন নেতৃত্ব
রাজশাহীর পশ্চিম ঝিকড়া কর্মকার পাড়ায় ২০০৬ সালে স্বেচ্ছাব্রতী ইয়ূথ সদস্যদের উদ্যোগে জ্ঞান অর্জনে বই দিয়ে বই পড়ি লাইব্রেরি গঠিত হয়। সে সময় নতুন কোঅর্ডিনেটর নির্বাচন করা হয়। গত ০২ফেব্রুয়ারী এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার শ্রী বিভাষ কুমার কর্মকারকে লাইব্রেরী কমিটির নতুন কোঅর্ডিনেটর হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এই লাইব্রেরিতে ফাইমা ফাউন্ডেশন থেকে ২০০০ টাকার নতুন বই দেওয়া হয়। বর্তমানে লাইব্রেরিতে মোট বইয়ের সংখ্যা দাড়িয়েছে ২২২৬ টি। লাইব্রেরির অনান্য দায়িত্বপ্রাপ্ত সদস্যরা হলো ঃ- এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার  পরাগ, বিমল, বিভাষ, সজিব, জীবন, স্মৃতি, বিথী, মুন্নি, ছাদিহা, আশফাকুর, আশরাফুল, বকুল, রফিকুল সহ আরো অনেকেই।
রিপোর্টঃ মোঃ আশরাফুল ইসলাম সরকার

নিরক্ষরতা দূরীকরণের লক্ষ্যে জরিপ ও উঠান বৈঠক
এ্যাকটিভ সিটিজেনস ও ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উদ্যোগে গত ৮ মার্চ আন-র্জাতিক নারী দিবসে লাইফ লাইন কম্পিউটার একাডেমীর প্রধান কার্যালয়ে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন কটিয়াদী আদর্শ বিদ্যানিকেতনের প্রধান শিক্ষক জনাব নজরুল ইসলাম । এদিন প্রথম পর্বে সকাল ৮ টায় শুরু হয় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কামারকোনা গ্রামের নিরক্ষর মহিলাদের তালিকা তৈরীর জন্য জরিপ। এতে ১৫ জন ইয়ূথ লিডার সহযোগীতা করেন। প্রায় ১০৭০ জন মহিলাকে নিরক্ষর চিহ্নিত করা হয়। ২য় পর্বে অনুষ্ঠিত এই নারীদের নিয়ে উঠান বৈঠক। এটি পরিচালনা করেন ইয়ূথ একটিভিষ্ট মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগিতা করেন  হাকিকত, বোরহান, শফিক, মাছুম , রম্নবেল , মিঠুন,তানিয়া নাছরিন, বায়জীদ, মওলা ,ফাতেমা ও সুমন। সভায় এই নারীদের নিয়ে একটি নৈশ কালীন বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করার জন্য সকলে ঐক্যমত হন।
রিপোর্ট:  মোজাম্মেল হক
গণশিক্ষা প্রণদনে গণস্বাক্ষর আভিযান
আমরা বর্ণমালা ধারণ করব,সবার মাঝে ছড়িয়ে দিবো । এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে গত ১২ ফ্রেবুয়ারী বেলা ৩টায় বরিশাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার ,বরিশাল সদর ইউনিট আয়োজন করে গণশিক্ষা প্রণদনে গণস্বাক্ষর আভিযান ।এখানে উপসি’ত ছিলেন ভাষা সৈনিক ইউসুফ উদ্দিন কালু , স ম ইমানুল হাকিম (বিভাগীয় প্রধান ইতিহাস বিভাগ,ব্রজমোহন কলেজ) সুলতানা পারভীন (বিভাগীয় প্রধান বাংলা বিভাগ ,পটুয়াখালি সরকারি কলেজ) আসাদুল জামান আসাদ (রসায়ন বিভাগ, সরকারি মহিলা কলেজ)। এরই সাথে সর্বস-রের মানুষ গণশিক্ষা প্রণদনে একতা প্রকাশ করেন এবং ৩৫০ জন সাক্ষর করে প্রতিশুতি দেন বণমালা ধারন করব,সবার মাঝে ছড়িয়ে দিবো ।
আওলাদ রাকিব

Advertisements