সুস্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন বিষয়ক সংবাদ

শাখারিয়ায় স্যানিটেশন নিয়ে উঠান বৈঠক
শাখারিয়া পশ্চিমপাড়া ব্র্যাক স্কুলে ১৫ অক্টোবর ২০১০ স্যানিটেশন এর গুরুত্ব ব্যাখ্যা করার লক্ষ্যে একটি উঠান বৈঠকের আয়োজন করা হয়। বৈঠকে এ্যাকটিভ সিটিজেনস ১৮৯তম ব্যাচের সদস্যরা স্যানিটেশন এর গুরুত্ব বিষয়ক আলোচনা করেন। ১৮ জন নারী ও ২০ জন পুরুষ এতে অংশ নেন এবং তারা তাদের পরিবারে যথাযথ স্যানিটেশন নিশ্চিত করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
রিপোর্ট:  শাহাদৎ
নিরাপদ পানির ব্যবহার নিশ্চিতকরণ বিষয়ক ক্যাম্পেইন
কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার পৌলইয়া চেয়ারম্যান বাড়িতে ১৫ জানুয়ারি ২০১১ এ্যাকটিভ সিটিজেনস ২৩৫তম ব্যাচের আয়োজনে নিরাপদ পানির ব্যবহার নিশ্চিতকরণে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে একটি ক্যাম্পেইনের আয়োজন করা হয়। এতে পৌলইয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক শাহীন আক্তার, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সবুজ উপসি’ত ছিলেন। সার্বিক সহযোগিতায় ছিল নুপুর। কামরুল হাসানের পরিচালনায় নিরাপদ পানি ব্যবহারের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে আতিকুর রহমান। এ্যাকটিভ সিটিজেনস আয়েশা, আসিফ, লিজা, রহিম, আল-আমিন, জুবায়ের, মাইরিনসহ ৭ জন পুরুষ ও ১৩ জন নারী  এতে অংশগ্রহণ করে।
রিপোর্ট: আতিকুর রহমান
আর্সেনিক আক্রান- রোগীদের সচেতনতামূলক কর্মশালা ও বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ
কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গত ৩ মার্চ ২০১১ নিরাপদ পানির ব্যবহার বিষয়ক কর্মশালা অনুুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় আর্সেনিকযুক্ত পানি ব্যবহারের কুফল, নিরাপদ পানির গুরুত্ব ও বৃষ্টির পানি সঠিকভাবে ধারণ করা ও ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করা হয়। কর্মশালায় ২০ জন নারী ও ১০ জন পুরুষ উপসি’ত হয় যার মধ্যে ১২ জন রোগীকে লাকসাম উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্স থেকে সংগৃহীত আর্সেনিক রোগ নিরাময়ের ঔষধ বিনামূল্যে সরবরাহ করা হয় । কর্মশালাটি পরিচালনা করেন এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার আতিকুর রহমান ও কামরুল হাসান।
রিপোর্ট – কামরুল হাসান।
জাতীয় ভিটামিন এ-প্লাস ক্যাম্পেইন এ সহায়তা করলেন কুমিল্লার ইয়ূথরা
২৯ মে ২০১১ এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার আতিকুর রহমান, নাজমা, মাইরিন মজুমদার, নূরুন্নাহার, তানভীর হাসান মৌসুমী ও সাদিয়া আক্তার রিয়া কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর, দৌলতপুর ও আশকামতা গ্রামের ৮টি অস’ায়ী টিকাদান কেন্দ্রে জাতীয় ভিটামিন এ-প্লাস ক্যাম্পেইন পরিচালনার দায়িত্ব পালন করে। ঐদিন ৬ মাস থেকে ১১ মাস বয়সী ১০৪ জন শিশুকে, ১ – ৫ বছর বয়সী ১৩২০ জন শিশুকে ভিটামিন এ-প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়। এছাড়া ২-৫ বছর  বয়সী ১১৯২ জন শিশুকে কৃমিনাশক ট্যাবলেট খাওয়ানো হয়। ক্যাম্পেইন পরিচালনা করেন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কুমিল্লা জেলা কমিটির সমন্বয়কারী আতিকুর রহমান।
রিপোর্ট – আতিকুর রহমান

আর্সেনিক আক্রান- রোগীদের সচেতনতামূলক  উঠান বৈঠক ও বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ

কুমিল্লা জেলার লাকসাম উপজেলার আজগরা ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামে গত ৬ জুন ২০১১ নিরাপদ পানির ব্যবহার বিষয়ক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। উঠান বৈঠকে আর্সেনিকযুক্ত পানি ব্যবহারের কুফল ও নিরাপদ পানির গুরুত্ব নিয়ে, বৃষ্টির পানি সঠিকভাবে ধরে রাখা এবং ব্যবহার প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করা হয়। লাকসাম উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্স থেকে সংগৃহীত আর্সেনিক রোগ নিরাময়ের ঔষধ উপসি’ত ১৫ জন রোগীকে বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়। উঠান বৈঠকটি পরিচালনা করেন এ্যাকটিভ  সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার আতিকুর রহমান, তানভীর হাসান, মাইরিন মজুমদার ও সাদিয়া সুলতানা রিয়া।
রিপোর্ট – মাইরিন মজুমদার

স্বাস্থ্যসম্মত পায়খানার উপকরণ বিতরণ

৭ জুন ২০১১ কুমিল্লা জেলার নাঙ্গলকোট উপজেলার উরুকচইল গ্রামের ইয়ূথ সদস্যদের উদ্যোগে স্বাস’্যসম্মত পায়খানা ব্যবহার করে না এমন একটি দরিদ্র পরিবারে স্বাস’্যসম্মত পায়খানার উপকরণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়। একতা সমবায় সমিতির  সদস্য, ইয়ূথ সদস্য ও এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার ১৬ জন ৫০ টাকা করে চাঁদা দিয়ে মোট ৮০০ টাকায় ৪টি রিং ও একটি স্লাব কিনে এলাকার প্রায় ১০০ জন লোকের উপসি’তিতে বিতরণ করে। পরিবারটি এতটাই দরিদ্র যে, তারা স্বাস’্যসম্মত পায়খানা ব্যবহার করতো না এবং নিয়মকানুনও জানতো না। ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কুমিল্লা জেলা কমিটির সমন্বয়কারী আতিকুর রহমান এর উপসি’তিতে মাসুদ করিম, শামীম, ইমরান ও শিল্পী উপসি’ত সকলকে নিয়ে একটি উঠান বৈঠকের মাধ্যমে স্বাস’্যসম্মত পায়খানা ব্যবহারের নিয়মকানুন সম্পর্কে অবহিত করেন। 
রিপোর্ট – মাসুদ করিম।

 

 

 

Advertisements