প্রশিক্ষণ সংবাদ

ইয়ূথদের আয়োজনে করিমগঞ্জে ব্যতিক্রমী প্রশিক্ষণের আয়োজন

২০-২১ মার্চ ২০১১ করিমগঞ্জ পৌরসভায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার এর সক্রিয় সদস্যদের সার্বিক সহযোগিতা ও প্রচেষ্টায় অনুষ্ঠিত হলো “পল্লী প্রকৌশলী” নামক প্রশিক্ষণ। করিমগঞ্জ পৌরসভাকে শতভাগ স্যানিটেশন এর আওতায় আনয়নের লক্ষ্যে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। প্রশিক্ষণের মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য ছিল পৌরসভার শতভাগ পরিবারকে স্বাস’্যসম্মত ল্যাট্রিন বানাতে উদ্বুদ্ধ করা ও কিভাবে ও অল্প খরচে তৈরি করা যায় সে বিষয়ে হাতে-কলমে শেখানো। পৌরসভার তিনটি ওয়ার্ড থেকে ১২ জন নারী ও ১২ জন পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণটি পরিচালনা ও সহযোগিতায় ছিল মামুন, বোরহান, শফিক, শারমীন ও মনি।
রিপোর্ট: মামুন

আচমিতা ইউনিয়নে দক্ষতা বিষয়ক কম্পিউটার প্রশিক্ষণ উদ্বোধন
৫ এপ্রিল ২০১১  সকাল ৯টায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার ও এ্যাকটিভ সিটিজেনস কটিয়াদী উপজেলা ইউনিট ও লাইফ লাইন কম্পিউটার একাডেমীর যৌথ উদ্যোগে আচমিতা ইউনিয়নের বানিয়াগ্রাম গ্রামের আকন্দ বাড়ীতে উদ্বোধন হলো দক্ষতা বিষয়ক কম্পিউটার প্রশিক্ষণ। এতে ইয়ূথ লিডার ও এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডারগণ অংশগ্রহণ করেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন ভি.টি.আর হাবিবুর রহমান (বর্ণালী), সভাপতিত্ব করেন বানিয়াগ্রাম রঈছুল উলুম নর্থ দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক জনাব ফেরদৌস আকন্দ সাহেব। এ প্রশিক্ষণটিতে আচমিতা ইউনিয়নসহ মসূয়া, পাটুয়াভাঙ্গা, সালুয়াদী, জালালপুর ও কটিয়াদী পৌরসভার ছাত্র-ছাত্রীগণ অংশগ্রহণ করেন। এ প্রশিক্ষণটি আয়োজনে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার জয়ন-ী ইউনিটের সদস্যগণ ও মধ্যপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০১১ সালের এস.এস.সি পরীক্ষার্থীবৃন্দ এবং দোলনা, তাছলিমা, পাপিয়া, মিলি, খুকি, তানঈম আকন্দ ও ওবায়দুল্লাহ আকন্দ ভূবন।
রিপোর্ট: মোজাম্মেল হক

ফ্রি-কম্পিউটার শিক্ষা দান

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। উন্নত তথ্য-প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বদলে যাচ্ছে বর্তমান অবস’া। আর সেই পরিবর্তনের স্বপ্ন দেখি আমরাও। গ্রামের ছাত্রদের বর্তমান সভ্যতার অন্যতম উপাদান কম্পিউটার ও ইন্টারনেট শিক্ষাদানের মাধ্যমে যুগোপযোগী চিন-া-চেতনার বিকাশ ঘটাতে ও যোগ্য করে গড়ে তুলতে সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে নাটোর এর গুরুদাসপুরের বমনবাড়ীয়া গ্রামের বমনবাড়ীয়া ছাত্রকল্যাণ পঠাগারে গত ৬ মে ২০১১ থেকে শুরু হয়েছে ফ্রি কম্পিউটার শিক্ষাদান। নিজেদের ও পাঠাগারে কোনো কম্পিউটার না থাকায় পার্শ্ববতী গ্রামের উজ্জীবক মোঃ রঞ্জু আহাম্মেদ এর সদয় অবগতিতে তার ল্যাপটপ কম্পিউটারের মাধ্যমে সপ্তাহে একদিন শুক্রবার চলছে এই ফ্রি-কম্পিউটার  শিক্ষাদান। প্রথম অবস’ায় ৬ জন ছাত্র নিয়ে শরু করলেও অন্যান্যরাও বর্তমানে আগ্রহী হয়ে উঠছে। উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টি ও কম্পিউটারের ব্যবস’া করতে পারলে আগামীর কর্ণধার এই তরুণদের যথাযথ বিকাশ ঘটাতে আমরা আরো ব্যাপক অবদান রাখতে পারবো বলে বিশ্বাস করি।

ইয়ূথদের উদ্যোগে প্রথম কম্পিউটার প্রশিক্ষণ সফলভাবে সমাপ্ত

১৭ মে ২০১১ সকাল ৯টায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার ও এ্যাকটিভ সিটিজেনস কটিয়াদী উপজেলা ইউনিট ও লাইফ লাইন কম্পিউটার একাডেমীর যৌথ উদ্যোগে আচমিতা ইউনিয়নের বানিয়াগ্রাম গ্রামের আকন্দ বাড়িতে একমাস ব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণের সমাপনী ও সার্টিফিকেট বিতরণ  অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন কিশোরগঞ্জ জজ কোর্টের সম্মানিত এ,পি,পি এ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, “আমরা সব সময় তোমাদের পাশে থাকব ও ডিজিটাল বাংলাদেশের সৈনিক হিসেবে গড়ে তোলার মানসে এ লাইফ লাইন একাডেমীকে সার্বিক সহযোগিতা করে যাব”। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশ ময়মনসিংহ অঞ্চলের ইয়ূথ সমন্বয়কারী খায়রুল বাশার রাসেল ,আবু হানিফ,ডাঃ আঃ মান্নান, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও পৌরসভা ইউনিটের উপদেষ্টা সৈয়দ মুরছালিন দারাশিকো ও কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উপদেষ্টা আলহাজ্ব আঃ হান্নান (বাবু হাজী) সাহেব। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বানিয়াগ্রাম দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক জনাব ফেরদৌস আকন্দ মিল্লাত স্যার। সবশেষে ইয়ূথ লিডার সোহেলের গীত রচনায় একটি জাগরণী সংগীত পরিবেশন করা হয়। এতে সোহেল, দোলেনা, তানঈম, মিলি, পাপিয়া, রোকসানা, শিরিন, আইরিন, মনিরানী ও ভূবন সম্মিলিত সংগীত পরিবেশন করেন। সাংস্কৃতিক পরিবেশনার পর প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথি কর্তৃক সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথি কর্তৃক এ একাডেমীর দুই জন মেধাবী মুখ রুমা আক্তার ও ফারুক মিয়াকে পুরস্কার প্রদান করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে আচমিতা ইউনিয়নের সর্বস-রের জনগণ অংশগ্রহণ করেন। এ প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করেন মোজাম্মেল হক, হাকিকুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম ও ওবায়দুল্লাহ আকন্দ।

 

Advertisements