অন্যান্য খবরা-খবর

ফজর আলী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে বিতর্ক কর্মশালা

ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-ঝিনাইদহ সদর ইউনিট এর ১৬২তম এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার্স ও ঝিনাইদহ বিতর্ক ক্লাব এর যৌথ উদ্যোগে গত ২৪ জুন ঝিনাইদহের ফজর আলী বালিকা উচ্চ বিদ্যালযে একটি বিতর্ক কর্মশালার আয়োজন করা হয়। বিতর্ক কর্মশালায় স্কুলের সপ্তম, অষ্টম ও নবম শ্রেনীর মোট ৪৫ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে কর্মশালার উদ্বোধন হয়। এরপর বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ বিতর্ক ক্লাবের আহবায়ক জনাব আব্বাস উদ্দিন আহমেদ। কর্মশালায় বিতর্কের বিভিন্ন কৌশলগত বিষয়ে আলোচনা করা হয়। কর্মশালা শেষে অংশগ্রহণকারীদের সমন্বয়ে এগারো সদস্য বিশিষ্ট একটি বিতর্ক ক্লাব গঠিত হয়। এই ক্লাবের উদ্যোগে বিদ্যালয়ে প্রতিমাসে অন-ত একটি করে বিতর্ক প্রতিযোগিতার আয়োজন করার পরিকল্পনা করা হয়। বিতর্ক কর্মশালার মাধ্যমে ছাত্রীরা বিতর্কের বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে জানতে পেরেছে এবং প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একটি করে বিতর্ক ক্লাব থাকা প্রয়োজন বলে জানান। কর্মশালাটি পরিচালনা করেন ১৬২তম এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার্স ট্রেনিং এর সহায়ক ও প্রশিক্ষণার্থী সাজ্জাদ, ফারুক, অমিত, ফাতিমা, আরিফ ও সাদিয়া।

রিপোর্ট: অমিত বিশ্বাস

ঈদ পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ২০১০
কমিরগঞ্জ উপজেলা ইয়ূথ লিডার এবং  স’ানীয় উজ্জীপক নারীনেত্রী এবং গণ্যমান্য ব্যাক্তি বর্গের অংশগ্রহণে ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১০ আশোতিয়াপাড়া প্রাইমারী স্কুল প্রাঙ্গনে এক জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
উক্ত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর কর্মী আশোক বিশ্বাস। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন অনুষ্ঠান কমিটির আহবায়ক  তানভীর আহমেদ সিদ্দীক। এছাড়া ইত্তেফাকের তরুন কন্ঠ সম্পাদক লিমন,উপজেলা সমন্বয় কমিটির আহবায়ক শফিক, ১৫ তম  এনওয়াইসি সদস্য সাব্বির হোসাইন, ইয়ূথ লিডার মামুন, করুনা,দ্বীন মোহাম্মদ, বুরহান সহ স’ানীয় লিডার্সরা। অনুষ্ঠানে  ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার করিমগঞ্জ এর বার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয়াদি তুলে ধরা হয়। জাতীয় সঙ্গীত ও কুরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু  হয় এবং ২০টি বিষয়ে বিভিন্ন প্রতিযোগীতা  অনুষ্ঠিত হয়। সারা দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান শেষে ৬০ জনকে বিভিন্ন ইভেন্টে পুরষকৃত করা হয়। পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে স’ানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপসি’ত থেকে অনুষ্ঠানটিকে সফল করেন । সবশেষে অঙ্গীকার নামা ও বার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন পেশ করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।
চ্যানেল আই-এর টক শো’তে ইয়ূথ সদস্যদের অংশগ্রহণ
গত ১২ জুন ২০১০ সন্ধ্যা ৬.২০ মিনিটে ব্রিটিশ কাউন্সিল এর উদ্যোগে চ্যানেল আইতে “বাংলাদেশ: আগামী প্রজন্ম”শীর্ষক বিশেষ টক শো-তে ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের ১২ জন সদস্য স্বত:স্ফূর্তভাবে  অংশগ্রহণ  করে । বিশিষ্ট উপস’াপিকা  ফারজানা ব্রাউনিয়ার উপস’পনায় টক শো’তে প্যানেল আলোচক হিসেবে ছিলেন ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের হেড অব কালচার, ক্লাইমেট চেঞ্জ এণ্ড সিটিজেনশিপ এর মাসুদ হোসেন,এ্যাকশন এইডের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ কবির, এ্যাডকমের ব্যবস’াপনা পরিচালক নাজিম ফারহান চৌধুরী এবং এশিয়া ফাউন্ডেশনের সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার শীলা তাসনিম হক। ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের পক্ষ থেকে যারা এই টক শো’তে অংশ নিয়েছিলেন তারা হলেন শাহীন মাহমুদ,মেহের নাজমুন ইসলাম তিশা,জামিল আক্তার, সাজ্জাদ হোসেন রিজু, শাহনেওয়াজ বুলবুল অয়ন, ইমন,গুলশান আরা খানম,আরাফাত রহমান,বেলী রায়,আফসানা মিমি,খাইরুল বাশার এবং অশোক বিশ্বাস।
ঝিনাইদহে  গণশিক্ষা কার্যক্রম
গত ৩১ আগষ্ট ২০১০ ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের চকলা কমিউনিটিতে ৩য় পর্বের গণশিক্ষা কার্যক্রমের সমাপনী অনুষ্ঠান হয়েছে।  এবারের কার্যক্রমটি ১৬২তম এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ুথ লিডার্স ট্রেনিং এর অন-র্গত একটি সামাজিক উদ্যোগ। কার্যক্রমটি গত ২৭ ফেব্রয়ারি শুরু হয় এবং ৩১ আগষ্ট শেষ হয়। এবারের কার্যক্রমটি ২৫ জন শিক্ষার্থীকে নিয়ে শুরু হয়েছিল এবং এর মধ্যে ১৫ জন শিক্ষার্থী খুব ভালভাবে লিখতে ও পড়তে শিখেছে। এলাকায় ইয়ূথ লিডারদের এরকম উদ্যোগকে সবাই সাধুবাদ জানিয়েছে। গণ শিক্ষা কার্যক্রমটি এগিয়ে নিতে বিশেষ ভূমিকা রাখে ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের কো-অর্ডিনেটর আমিনুল, সাঈদ, লিটন । ইয়ূথ লিডার প্রণব কাজটি সমন্বয় করে।
মানিকগঞ্জ, যশোর, এবং সিলেটে গণশিক্ষা ওরিয়েন্টশন:
সমাজ থেকে নিরক্ষরতার অভিশাপ ও কলঙ্ক মোচনের লক্ষ্যে এ্যাকটিভ সিটেজেনস ইয়ূথ লিডারদের উদ্যোগে গত ১৭ জুন ২০১০ মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কাউটিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সোশ্যাল এ্যাকশন প্রজেক্টর অংশ হিসেবে এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার্সদের উদ্যোগে গণশিক্ষাকেন্দ্র পরিচালনার জন্য সহায়কদের নিয়ে গণশিক্ষা বিষয়ক একটি ওরিয়েন্টশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৫ জন সদস্য অংশগ্রহণ করেন,যার মধ্যে নারী সদস্য ছিল ১৪ জন। কর্মশালা শেষে সহায়করা এক সপ্তাহের মধ্যে ৩ টি স’ানে ৮০ জন নিরক্ষর ব্যক্তিকে নিয়ে ৩টি গণশিক্ষা কেন্দ্র চালুর সিদ্ধান- গ্রহণ করেন। কার্যক্রমটি পরিচালনা করেন ইয়ূথ মোবিলাইজেশন ইউনিটের অশোক বিশ্বাস এবং ইয়ূথ এক্টিভিষ্ট জামিল আক্তার। উক্ত আয়োজনে বিশেষভাবে ভূমিকা রাখেন ইয়ূথ লিডার নজরুল ইসলাম ও ওয়াসিম আহমেদ।

গত ১৭ জুন ২০১০ যশোরের অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী এস.টি.স্কুল এ্যান্ড কলেজে ১২৯ ও ১৭২ তম এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার্সদের নিয়ে গণশিক্ষা বিষয়ে একটি ওরিয়েন্টশন অনুষ্ঠিত হয়। এতে গণশিক্ষা প্রস-াবনার ২৬ জন উদ্যোক্তা অংশগ্রহণ করে। ওরিয়েন্টশনটি পরিচালনা করেন ইয়ূথ মোবিলাইজেশন ইউনিটের অশোক বিশ্বাস। উক্ত আযোজনে বিশেষভাবে সহযোগিতা করে বনশ্রী,মৌসুমী,অমিত ,সনাতন প্রমুখ।

গত ১ জুলাই ২০১০ বিকাল ৩টায় দি হাঙ্গার প্রজেক্ট সিলেট কার্যালয়ে গণশিক্ষা বিষয়ে একটি ওরিয়েন্টশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সিলেটের পাশ্ববর্তী বিভিন্ন ইউনিটের ১৫ জন সদস্য অংশগ্রহণ করেন। কর্মশালা শেষে এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডার্সদের গৃহীত উদ্যোগের দু’টি স’ানে গণশিক্ষা কেন্দ্র চালুর সিদ্ধান- গ্রহণ করেন। কার্যক্রমটি পরিচালনা করেন ইয়ূথ মোবিলাইজেশন  ইউনিটের অশোক বিশ্বাস। এসময় দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর সিলেটের সমন্বয়কারী নাসির উদ্দিন এবং আখতারুল ইসলাম উপসি’ত ছিলেন।

সামাজিক উদ্যোগ কার্যক্রম পরিদর্শন  ও ভিডিও  ডকুমেন্টরী প্রদর্শন:
গত ১ আগষ্ট ২০১০ যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া আইডিয়া কোচিং সেন্টার মিলনায়তনে ১৬৬তম এ্যাকটিভ
সিটিজেনস ইয়ূথ লিডারদের উদ্যোগে গড়ে ওঠা ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ ক্লাবের সদস্যদের সাথে ব্রিটিশ কাউন্সিলের এ্যাকটিভ সিটিজেনস এ্যাণ্ড গ্ল্লোবাল একচেঞ্জ এর প্রোজেক্ট ম্যানেজার নাজমুল হক মতবিনিময় এবং ক্লাবের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন । ইংলিশ ক্লাবের সদস্যগণ, শিক্ষার্থী, ক্লাবের উপদেষ্টা মন্ডলী, শিক্ষক সহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিবর্গ উপসি’ত ছিলেন। এসময়  ইংলিশ ক্লাবের  সদস্যরা  ক্লাবের লক্ষ্য উদেশ্য এবং তাদের গৃহীত কর্মসূচীগুলো সকলের সামনে তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানটি সমন্বয় করেন ইংলিশ ক্লাবের সমন্বয়কারী অনিক ইসলাম।
এরপর শংকরপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমন্বয় সভাতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন অভয়নগর উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জাহিদ হোসেন । এ সময় ব্রিটিশ কাউন্সিলের নাজমুল হক, প্রজেক্ট ম্যানেজার- এ্যাকটিভ সিটিজেনস এ্যান্ড গ্লোবাল এক্সচেঞ্জ, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার  খোরশেদ আলম ,সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক এর অভয়নগর উপজেলা  সহ-সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম,শেখ কবিরুল হাসান প্রমুখ উপসি’ত ছিলেন । অভয়নগরের বিভিন্ন  শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপসি’ত ছিলেন।
শংকরপাশা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কর্মসূচী শেষে সুন্দলী এস.টি. স্কুল এ্যান্ড কলেজে নিরক্ষরতা দূরীকরণ ,বাল্যবিবাহ,বৃক্ষরোপণ,পাঠাগার,বির্তক বিষয়ক এ্যাকটিভ সিটিজেনদের উদ্যোগে গৃহীত বিভিন্ন সামাজিক উদ্যোগ পরিদর্শনে যান । এসমময় ইয়ূথ লিডাররা তাদের প্রস-াবনার বর্তমান অবস’া ,অর্জন ও ভবিষ্যৎ করণীয় দিকসমূহ তুলে ধরে । এরপর একটি বিতর্ক
প্রতিযোগিতা ,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও বাল্যবিবাহ বিষয়ক নাটিকা প্রদর্শন করে । উক্ত অনুষ্ঠানে সুন্দলী এস.টি. স্কুল এ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুল লতিফ সহ কলেজ ও স্কুল শাখার সকল শিক্ষকগণ উপসি’ত ছিলেন ।
গত ২ আগষ্ট ২০১০ কুষ্টিয়ার বারখাদা ও জগতি ইউনিয়নে বিভিন্ন স্পটে বৃক্ষরোপণ,পাঠাগার, নিরক্ষরতা দূরীকরণ,মাদক প্রতিরোধ  বিষয়ক এ্যাকটিভ সিটিজেনদের উদ্যোগে গৃহীত বিভিন্ন সামাজিক উদ্যোগ পরিদর্শন ও ভিডিও  ডকুমেন্টরী  অনুষ্ঠিত হয় । ডকুমেন্টরী তৈরি করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশের প্রোগ্রাম ম্যানেজার জনাব আহসানুল কবির ডলার। সবশেষে বারখাদা স্কুল অঙ্গনে নিরক্ষরতা দূরীকরণে উদ্বুদ্ধকরণ বিষয়ক একটি বিশেষ নাটক প্রদর্শিত হয়। এতে ভূমিকা রাখে মাহমুদ,রুমা,আশফাকুল,অর্পূব,আলী ,তমাল প্রমুখ ।
গত ৩ আগষ্ট ২০১০ মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার তেতুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন,রায়পুর ইউনিয়ন এবং গাংনী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে লাইব্রেরী,গণশিক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন, বির্তক প্রতিযোগিতা, বাল্যবিবাহ বিষয়ক নাটিকা প্রদর্শন ও বিভিন্ন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশেষভাবে ভূমিকা রাখেন গাংনী পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও স্বেচ্ছাব্রতী প্রশিক্ষক সিরাজুল ইসলাম ,স্বপন ,মিমি প্রমুখ। উক্ত কর্মসূচীগুলো সার্বিকভাবে সমন্বয় করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর সিনিয়র প্রোগ্রাম অফিসার জনাব খোরশেদ আলম,আঞ্চলিক সমন্বয়কারী আব্দুস সবুর এবং অশোক বিশ্বাস ।
সোয়াইন-ফ্লু  ভ্যাকসিন নেয়া
গত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১০ ইং ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার কটিয়াদী উপজেলা ইউনিটের উদ্যেগে চরিয়াকোনা সৈয়দ বাড়ীতে উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সের সহযোগীতায় সোয়াইন-ফ্লু ভ্যাকসিন নেয়া হয়। এতে ৩০ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। অত্র গ্রামের  প্রায় সকল ছাত্র- ছাত্রী এতে সহযোগীতা করেন। ইয়ূথ লিডার হাকিবাত কার্যক্রমটি আয়োজনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে ।
করিমগঞ্জে আলোর দিশারী ইউনিটের আয়োজনে সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
কিশোরগঞ্জের জাফরাবাদ উচ্চ বিদ্যালয়ে গত ১১ জুলাই ২০১০ এক জমজমাট সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ২০ মিনিট ব্যাপী পরীক্ষায় দুটি বিভাগে মোট ১৮৫ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। ”এ” গ্রুপে প্রথম হয়েছে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী কামরুন্নাহার ঝুমা এবং ”বি” গ্রুপে প্রথম হয়েছে ১০ম শ্রেণীর ছাত্র মোঃ হোসাইন। দুই গ্রুপে ৫জন করে মোট ১০ জন কে পুরষ্কার প্রদান করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য জনাব সোলায়মান এর মতে এ ধরনের উদ্যোগ শুধু ছাত্র-ছাত্রী দের মেধা বিকাশেই নয়; শিক্ষক মন্ডলীর মেধা ও মননের বিকাশও ঘটাবে। উক্ত প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানের সফলতায় বিশেষ ভূমিকা পালন করেন নুসরাত জাহান মুন, সুমন চন্দ্র, তন্ময়, হ্যাপি, শামীমা, জাকির, আমিনুল ও আলোর দিশারী ইউনিটের সকল সদস্য।
প্রতিবেদক
আব্দুল্লাহ্‌ আল মামুন       
কুইজ প্রতিযোগিতা
আয়োজনে  ইয়ুথ  এন্ডিং হাঙ্গার করিমগঞ্জ
গত ১ সেপ্টেম্বর ২০১০, ১৫তম এনওয়াইসি সদস্য সাব্বির হোসাইন উপজেলা সমন্বয় কমিটির আহবায়ক জনাব শফিক এবং স’ানীয়  হাইস্কুল শিক্ষক জমশেদ আলীর নেতৃত্বে একটি ব্যতিক্রমধর্মী কুইজ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত প্রতিযোগিতায় শিক্ষা, সাংস্কৃতি,অর্থনীতি, বিজ্ঞান ,খেলাধুলা, ভূ-গোল, বাংলাদেশ ও সামপ্রতিক বিশ্ব থেকে বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। প্রতিযোগিতা  শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণ করা হয় এবং একটি  ত্রৈমাসিক কুইজ  প্রতিযোগিতার পরিকল্পনা গৃহীত হয় ।
পরিদর্শন প্রতিবেদন
”সমাজ হোক নিরক্ষর মুক্ত” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ১৩৮তম এ্যাকটিভ সিটিজেনস ইয়ূথ লিডারদের একটি দল খুলনা জেলার দৌলতপুর থানার ৫ নং ওয়ার্ডের সুবিধাবঞ্চিত কিছু মানুষকে নিয়ে একটি গণশিক্ষা কার্যক্রম চালু করে। গত ৭ আগষ্ট ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের একটি দল উক্ত কেন্দ্রটি পরিদর্শন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন সরকারি বি. এল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. আহমেদ রেজা এবং ইয়ূথ এণ্ডিং হাঙ্গার বি. এল কলেজ ইউনিটের উপদেষ্টা শংকর মল্লিক। ব্রিটিশ কাউন্সিল বাংলাদেশের হেড অব কালচার, ক্লাইমেট চেঞ্জ এ্যাণ্ড সিটিজেনশিপ এর মাসুদ হোসেন এবং এ্যাকটিভ সিটিজেন এ্যাণ্ড গ্লোবাল একচেঞ্জ এর প্রোজেক্ট ম্যানেজার নাজমুল হক উক্ত কেন্দ্রের শিক্ষার্থীদের শিক্ষার বিভিন্ন বিষয়াবলী সম্পর্কে তদারকি করেন। উক্ত অনুষ্ঠানটি অয়োজনে সহায়তা করেন মাসুদ, সাঈদ, সাজ্জাদ, নন্দীতা, বাবলু, হীরা, সুমী, খদিজা প্রমুখ। উক্ত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন ইয়ূথ এক্টিভিস্ট মোক্তার হোসেন এবং ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার এর ন্যাশনাল কো-অর্ডিনেটর শাহীন মাহমুদ।
প্রতিবেদক
এম. সাজ্জাদ হোসেন
সরকারী বিএল কলেজ ইউনিট
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হলো ফিচার সাংবাদিকতা বিষয়ক প্রশিক্ষণ
ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাফেটেরিয়ায় গত ২ জুলাই ২০১০ দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হলো ফিচার সাংবাদিকতা বিষয়ক প্রশিক্ষণ ।  প্রশিক্ষণ সংবাদ ও সাংবাদিকতার বিভিন্ন বিষয়ের পাশাপাশি ফিচার সাংবাদিকতা কী ও কিভাবে ফিচার লেখা যায় তার উপর হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়। বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনার পাশাপাশি সংবাদ সূচনা ও ফিচার লেখার উপর অনুশীলনও করানো হয়। প্রশিক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের ২৪ জন ইয়ূথ সদস্য অংশগ্রহণ করে। শিক্ষার্থীদের মেধা ও সৃজনশীলতা বিকাশে এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়েছে বলে আয়োজক সূত্র জানিয়েছে।
প্রশিক্ষণে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট কো-অর্ডিনেটর আনোয়ারুল হক সাগর। তাকে সার্বিক সহযোগিতা করেন যুগ্ম কো-অর্ডিনেটর আরিফা আক্তার আঁখি। প্রশিক্ষণটি পরিচালনা করেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ রাজশাহী অঞ্চলের সমন্বয়কারী সুব্রত কুমার পাল ও এ্যাকটিভ সিটিজেন ফ্যাসিলিটেটর বাহা উদ্দিন। ৮ জুলাই বিকাল ৫টায় মূল্যায়ন পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। মূল্যায়ন পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হওয়ার পর অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে সনদপত্র বিতরণ করা হয়।
রিপোর্ট
মোঃ আনোয়ারুল হক সাগর
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে  ‘গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড’
সুশাসন প্রতিষ্ঠায় গণতান্ত্রিক চেতনাসমৃদ্ধ জাতি গঠনের প্রত্যয়ে তরুণ সমাজকে গণতন্ত্র, সুশাসন, নাগরিক অধিকার, নাগরিকদের দায়িত্ব ও কর্তব্য ইত্যাদি বিষয়ে সচেতন করার লক্ষ্যে ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কমিটির আয়োজনে সুজন-সুশাসনের জন্য নাগরিক এর সহযোগিতায় গত ২২ আগস্ট ২০১০ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড’ ।
দুপুর ২ টায় ‘গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড’ এর শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন ইয়ুথ এন্ডিং হাঙ্গার-জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের সাবেক কো-অর্ডিনেটর গাজী ইব্রাহিম আল মামুন । দুপুর ২:১৫ মিনিট হতে ২:৪৫ মিনিট পর্যন- পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় । এর পর শুরু হয় মুক্ত আলোচনা পর্ব । এই পর্বে প্রথমেই স্বাগত বক্তব্য প্রদান করে – জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের কো-অর্ডিনেটর গোলাম মোঃ খায়রুজ্জামান। এর পর ‘সুজন’ সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদারের সঞ্চালনায় আমি কে ? এই প্রশ্নের উত্তর খোজার মাধ্যমে মুক্ত আলোচনা পর্ব এগিয়ে চলে ।
মুক্ত আলোচনা পর্বের সভাপতি অধ্যাপক ড. নাসিম আখতার হোসাইন এর বক্তব্যের মাধ্যমে এই পর্ব শেষ হয়। এই অলিম্পিয়াডে ‘সুজন’ সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার ছাড়াও সুজন নির্বাহী সদস্য জনাব তোফায়েল আহমেদ উপসি’ত ছিলেন। এছাড়াও  এই অলিম্পিয়াডে অতিথি হিসেবে উপসি’ত ছিলেন সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ শামছুল আলম , একই বিভাগের অধ্যাপক ড. নাসিম আখতার হোসাইন, সহযোগী অধ্যাপক জনাব বশির আহমদ ও প্রভাষক জনাব সাজেদুর রহমান , আরো উপসি’ত ছিলেন জনাব মোজাহিদুল ইসলাম সহযোগী অধ্যাপক ইতিহাস বিভাগ ,জনাব মাসউদ ইমরান, সহকারী অধ্যাপক   প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ।
অলিম্পিয়াডটি আয়োজনে সার্বিক সহোযোগিতা ও দিক নির্দেশনা প্রদান করেন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিটের সাবেক কো-অর্ডিনেটর ও ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-বাংলাদেশ এর যুগ্ম ন্যাশনাল কো-অর্ডিনেটর মোঃ জামিল আকতার । দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর পক্ষ হতে অলিম্পিয়াডটিতে উপসি’ত ছিলেন ঢাকার আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মুর্শিকুল ইসলাম শিমুল ও ইয়ূথ মোবিলাইজেশন ইউনিটের মামুনুর রশীদ রাদিফ। 
সবশেষে অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে সেরা ১০ জনকে পুরষ্কার ও সকল অংশগ্রহণকারীকে সার্টিফিকেট প্রদানের মাধ্যমে গণতন্ত্র অলিম্পিয়াড শেষ হয় । পুরো অনুষ্ঠানটি উপস’াপনা করে ইউনিট সদস্য আরাফাত ও দিনা । যাদের অক্লান- পরিশ্রমে অনুষ্ঠানটি সফল ভাবে পরিচালিত হয় তারা হলো ইমন, রাঙ্গা, নাসির, আল-আমিন, জুয়েল, রাশা, তাজুল, মোশতাক, বিপ্লব, জিনিয়া, ফয়সাল প্রমুখ।
রিপোর্ট: জামিল আক্তার
হ্যালো বাংলাদেশ : ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের একটি অর্জন
গত ৬ সেপ্টেম্বর ২০১০ রাত ১.৩০ মিনিটে এটিএন বাংলায় প্রচারিত হয় টকশো ”হ্যালো বাংলাদেশ”। অনুষ্ঠানটির সঞ্চালক ছিলেন রাহুল রাহা। অনুষ্ঠানটিতে ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের পক্ষ থেকে অংশগ্রহণ করেন লিপি আক্তার। এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সমসাময়িক রাজনৈতিক অবস’া, এ সম্পর্কে তরুণদের ভাবনা, তরুণরা কেন শিক্ষিত হতে বিদেশমুখী হচ্ছে, দেশের বর্তমান পরিসি’তিতে তরুণদের কি করণীয় এবং নারীদের বর্তমান অবস’াসহ বিভিন্ন সমসাময়িক বিষয় তুলে ধরা হয়।
রিপোর্ট
সজীব
বন্ধুত্বের বন্ধনে ধূমপানমুক্ত রাজশাহী সিটি ইউনিট
গত ১ আগষ্ট ২০১০ ছিল বিশ্ব বন্ধু দিবস। ”হাত বাড়ালেই বন্ধু”- এ নীতিতে বিশ্বাসী হয়ে রাজশাহী সিটি ইউনিট বন্ধু দিবসে একটি পাঠচক্রের আয়োজন করে। আলোচনা শেষে রাজশাহী সিটি ইউনিটকে ধূমপানমুক্ত ইউনিট হিসেবে ঘোষণা করে ইয়ূথ এক্টিভিস্ট ও ন্যাশনাল ইয়ূথ ফোরামের সদস্য মাসুদুল করিম। এ সময় উপসি’ত ছিলেন পঞ্চদশ জাতীয় সম্মেলন কমিটির সদস্য ইউসুফ আলী, সিটি ইউনিটের সক্রিয় সদস্য জাকিয়া রহমান, শারমিন আক্তার, আরমান সিদ্দিকি সহ আরো অনেকে । রাজশাহী সিটি ইউনিট রাজশাহী মডেল স্কুল এন্ড কলেজে ধূমপান বিরোধী একটি ক্যাম্পেইনের আয়োজন করে। ক্যাম্পেইন শেষে সকল ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষক মন্ডলী মডেল স্কুল এন্ড কলেজ কে ধূমপানমুক্ত রাখার অঙ্গীকার করে।
রিপোর্ট
জাকিয়া রহমান মিতুল  
ইভটিজিং বিরোধী মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষরতা অভিযান
ইভটিজিং একটি সামাজিক ব্যাধি। বাংলাদেশে প্রতিদিন প্রায় তিন লক্ষ কিশোরী ইভটিজিং এর শিকার হচ্ছে এবং অনেকে আত্মহত্যার পথও বেছে নিচ্ছে। ইভটিজিং এর এই ভয়াবহতার কথা চিন-া করে ’মনুষ্যত্ববোধ জাগিয়ে তোলো, ইভটিজিং প্রতিরোধ করো’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে গত ১০ আগষ্ট ঢাকার শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ঢাকা সিটি ইউনিটের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ইভটিজিং বিরোধী মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষরতা অভিযান। উক্ত মানববন্ধনে ঢাকা সিটি ইউনিটের সদস্যসহ বিভিন্ন স-রের ২০ জন অংশগ্রহণ করে। আয়োজকরা পথচারী, দর্শনার্থীদের কাছ থেকে ইভটিজিং সম্পর্কে সচেতনতার অংশ হিসেবে স্বাক্ষর গ্রহণ করে। উক্ত অনুষ্ঠানে আরও উপসি’ত ছিলেন ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-বাংলাদেশ টিমের জিএম.শোয়েব আহমেদ, মামুনুর রশীদ রাদিফ ও অশোক বিশ্বাস। 

ঢাকা ঘুরে গেলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট
দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর গ্লোবাল প্রেসিডেন্ট ম্যারি এলেন ম্যাকনিশ গত ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১০ বাংলাদেশে আসেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন প্রতিষ্ঠানের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ড. জন কুনরড। ঐদিন বিকাল সাড়ে পাঁচটায় তারাঁ দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় অফিসের হল রুমে বাংলাদেশের কর্মীদের সাথে পরিচিত হন। অন্যান্যের মধ্যে ইয়ূথ মোবিলাইজেশন ইউনিটের প্রধান সমন্বয়কত্মী জি এম শোয়েব আহমেদ, মামুনুর রশীদ রাদিফ, অশোক বিশ্বাস, ফারহানা হোসেন জুঁই সেখানে উপসি’ত ছিলেন। জাতীয় কন্যাশিশু দিবস ২০১০ উদযাপনকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জে একটি অনুষ্ঠানে তাঁরা যোগ দেন। এ ছাড়াও তাঁরা দি হাঙ্গার প্রজেক্ট- বাংলাদেশ-এর স্বেচ্ছাব্রতী উজ্জীবকদের বিভিন্ন আয়বৃদ্ধি এবং সচেতনতা সৃষ্টিমূলক কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন।
ম্যারি এলেন ম্যাকনিশ দি হাঙ্গার প্রজেক্ট এর প্রেসিডেন্ট হিসেবে যোগ দেন ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১০। এর পূর্বে তিনি ১০ বছর যাবত আমেরিকান ফ্রেন্ডস সার্ভিস কমিটি (এএফএসসি) তে সাধারণ সম্পাদক এবং নির্বাহী প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। উল্লেখ্য, এএফএসসি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্বোত্তর সামাজিক ন্যায়বিচার, শানি- ও মানবতার সেবায় উল্লেখযোগ্য অবদানের জন্য যৌথভাবে ১৯৪৭ সালে নোবেল পুরস্কার পায়।

Advertisements

About John Coonrod

Executive Vice President, The Hunger Project
This entry was posted in অন্যান্য, কর্মশালা, কার্যক্রম, গণশিক্ষা আন্দোলন, দিবস উদযাপন, পাঠচক্র, প্রচারাভিযান, প্রতিযোগিতা. Bookmark the permalink.