পরিবেশ দিবস

‘আসুন নির্মল পৃথিবী গড়ার জন্য কিছু করি’ এই শ্লোগানকে সামনে রেখে ময়মনসিংহের অন্যতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সরকারী আনন্দমোহন কলেজ এর ইয়ূথ সদস্যদের উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ইংরেজি প্রবন্ধ ভিত্তিক পাঠচক্র ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দিবসকে কেন্দ্র করে স্বরচিত ইংরেজি প্রবন্ধ পাঠ করেন হাসান, অদ্বিতি ও মৌসুমী। প্রবন্ধ হতে পরিবেশ ও জলবায়ুর বর্তমান ও ভবিষ্যত পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা লাভ করা যায়। প্রবন্ধকে কেন্দ্র করে মুক্ত আলোচনাও অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে অনেকেই ইংরেজিতে তাদের মতামত তুলে ধরেন। এরপর বিশেষ আলোচনা পর্বে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রসায়ন বিভাগের প্রভাষক জনাব রওশন আলম। বক্তব্যে তিনি বলেন, পরিবেশের বর্তমান এই বিরূপ পরিস্থিতির জন্য শিল্পোন্নত দেশগুলো বিশেষভাবে দায়ী। অথচ এর দায়ভার বহন করতে হচ্ছে উন্নয়নশীল দরিদ্র দেশগুলোকে। উন্নত দেশগুলোকে আন্তর্জাতিকভাবে চাপ প্রয়োগ করে তাদের শিল্প ব্যবস্থাপনা পরিবেশ দূষণ মুক্ত রাখার জন্য বাধ্য করতে হবে। পাশাপাশি আমাদের সকলকে নিজ নিজ জায়গা থেকে পরিবেশ দূষণ মুক্ত রাখতে সচেষ্ট থাকতে হবে। তিনি এধরনের আয়োজনকে সাধুবাদ জানান। আলোচনায় আরো বক্তব্য রাখেন অলক, জান্নাত, অলি, ফারুক, নিতা, তামান্না, নিশু, কাওছার ও তাইজুল। মুক্ত আলোচনা থেকে দু’টি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়- প্রথমতঃ আমরা প্রত্যেকেই স্ব-উদ্যোগে একটি করে গাছ লাগাবো এবং অন্যকেও এব্যাপারে উৎসাহিত করবো। দ্বিতীয়তঃ আমরা পলিথিন বর্জন করবো এবং পারিবারিকভাবে এব্যাপারে উদ্যোগ নেবো। পুরো অনুষ্ঠানে সঞ্চালক ছিলেন অলক, আয়োজনে বিশেষভাবে সহায়তা করেন- হাসান, অলি ও ফারুক, সার্বিকভাবে সমন্বয় করেন সব্যসাচী সরকার।

বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে ১২ জুন সকাল ১১টায় রাজশাহী মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রায় ১৫৩ জন শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে সচেতনতামূলক পরিবেশ সম্পর্কিত সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। দি হাঙ্গার প্রজেক্ট-বাংলাদেশ এর সহযোগিতায় ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার রাজশাহী সিটি ইউনিট, রাজশাহী যুব নাগরিক ফোরাম ও স্টুডেন্ট চেইন রাজশাহী’র আয়োজনে প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এম হেম ব্রম। বক্তব্যে তিনি বলেন, শুধু পাঠ্যপুস্তকের গন্ডির মধ্যে ডুবে থাকলে প্রকৃত মানুষ হওয়া যায় না, পাঠ্যপুস্তকের বাইরেও অন্যান্য বিষয়াবলী সম্পর্কে জানা একজন শিক্ষার্থীর অবশ্য কর্তব্য। এই প্রতিযোগিতা নিশ্চয়ই শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে কাজে লাগবে। আরো বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের শিক্ষকমন্ডলী, রাজশাহী যুব ফোরামের রাজিব, স্টুডেন্ট চেইনের প্রতিনিধি ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট কর্মী সুব্রত কুমার পাল। ইয়ূথ এক্টিভিস্ট মাসুদুল করিম এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মাহবুব উল আলম, ইউসুফ আলী, রকি, রাজিব প্রমুখ। প্রতিযোগিতায় মেধার ক্রমানুসারে প্রথম ছয় জনকে পুরস্কৃত করা হয়।

রিপোর্ট: সব্যসাচী সরকার, সুব্রত কুমার পাল।

আমরা করব জয়-৬৭

Advertisements

About John Coonrod

Executive Vice President, The Hunger Project
This entry was posted in কার্যক্রম, দিবস উদযাপন. Bookmark the permalink.