আঞ্চলিক পরিকল্পনা সভা

ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার রংপুর অঞ্চলের বাৎসরিক পরিকল্পনা সভা ’০৯ আয়োজন করা হয় তিলোত্তমা হোটেল ও কমিউনিটি সেন্টারে। গত ২৩ মে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সভায় রংপুর অঞ্চলের বিভিন্ন ইউনিটের ১৫ জন ছেলে ও ৫ জন মেয়ে সদস্য অংশগ্রহণ করেন। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন দি হাঙ্গার প্রজেক্ট কর্মী তুহিন আলম, রাজেশ দে রাজু, শামীমা রহমান, মোঃ মাজেদুল ইসলাম ও মোঃ তহুরুল হাসান টুটুল। ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের কাজকে আরো গতিশীল, পরিকল্পিত ও যথাযথ ভাবে সম্পন্ন করার জন্য সকল কার্যক্রমকে সুনির্দিষ্ট করে তিনটি ভাগে ভাগ করা হয়। এই কার্যক্রমের ওপর ভিত্তি করে ১৪ সদস্যের তিনটি দল গঠন করা হয় এবং একজন দলনেতা নির্বাচন করা হয়। কর্মশালা ও ফলোআপ দলের সদস্যরা হলেন- হাসান, জাহাঙ্গীর, স্মৃতি, সজীব ও মজনু। সুনির্দিষ্ট কার্যক্রম দলের সদস্যরা হলেন- রাতুল, জাকির, ইমরান, ফাল্গুনী ও সাকিব। প্রশিক্ষণ দলের সদস্যরা হলেন- রাসেল, তিশা, মামুন ও কেয়া। পরিকল্পনা সভায় অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক সদস্যের সাথে আলোচনার মাধ্যমে দলগুলো তাদের আগামী দুই মাসের পরিকল্পনা তৈরি করেন। সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যে, নিয়মিতভাবে প্রতি দুই মাস অন্তর রংপুর অঞ্চলের ইয়ূথ সদস্যরা একসাথে বসে আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তী দুই মাসের পরিকল্পনা হাতে নেবে। এতে নতুন নেতৃত্ব তৈরি হবে এবং সদস্যদের সৃজনশীলতার বিকাশ ঘটবে। এভাবে সুপরিকল্পিত বিভিন্ন পদক্ষেপের মধ্য দিয়ে সংগঠনের সকল কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হবে তথা সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তন দ্রুত ও সুদৃঢ় হবে।

ঝিনাইদহ অঞ্চলের ৬টি জেলার ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের অগ্রসর সদস্যদের অংশগ্রহণে গত ২৭ মে আঞ্চলিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ২০০৯ সালের প্রত্যাশা ও অর্জন, ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-বাংলাদেশ এর বর্তমান সাংগঠনিক কাঠামো ও আগামীর কর্ম কৌশল নিয়ে আলোচনা করা হয়। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ৩টি টিম গঠন করা হয় ও সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। কার্যক্রমটি সফলভাবে বাস্তবায়নে বিশেষ ভূমিকা রাখেন ফারুক, মিষ্টি, আমিনুল, মিজান, মিশু, অমিত, লিটন ও অশোক। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব এম আব্বাস উদ্দিন আহমেদ, দি হাঙ্গার প্রজেক্ট কর্মী খোরশেদ আলম, আব্দুস সবুর খান, রওশন আরা লীনা, মাজেদুল ইসলাম ও তহুরুল হাসান টুটুল।

রিপোর্ট: মেহের নাজমুন ইসলাম তিশা, অশোক বিশ্বাস।


আমরা করব জয়-৬৭

Advertisements

One comment

  1. […] <!– /* Font Definitions */ @font-face {font-family:Vrinda; panose-1:1 1 6 0 1 1 1 1 1 1; mso-font-charset:0; mso-generic-font-family:auto; mso-font-pitch:variable; mso-font-signature:65539 0 0 0 1 0;} @font-face {font-family:SolaimanLipi; panose-1:2 0 5 0 2 0 0 2 0 4; mso-font-charset:0; mso-generic-font-family:auto; mso-font-pitch:variable; mso-font-signature:-2147385341 0 0 0 1 0;} /* Style Definitions */ p.MsoNormal, li.MsoNormal, div.MsoNormal {mso-style-parent:””; margin:0in; margin-bottom:.0001pt; mso-pagination:widow-orphan; font-size:12.0pt; font-family:”Times New Roman”; mso-fareast-font-family:”Times New Roman”; mso-bidi-font-family:Vrinda;} @page Section1 {size:8.5in 11.0in; margin:1.0in 1.25in 1.0in 1.25in; mso-header-margin:.5in; mso-footer-margin:.5in; mso-paper-source:0;} div.Section1 {page:Section1;} –> আঞ্চলিক পরিকল্পনা সভা […]

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে।