অন্যান্য খবর _ পুরস্কার বিতরণী

ময়মনসিংহের গৌরীপুর ইউনিটের সদস্যদের দ্বারা পরিচালিত বর্ণমালা আদর্শ কিন্ডারগার্টেন সিংজানী শাখার প্রতি বছরের মত ফলাফল প্রকাশ ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয় গত ২২ ডিসেম্বর, ২০০৮। ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে প্রতিযোগিতার আনন্দ ফুটে ওঠে, অভিভাবক ও অতিথিদের মধ্যেও মানসম্মত শিক্ষা নিয়ে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন স্কুলের সহকারী শিক্ষিকা বিউটি রানী কর। ফলাফল প্রকাশ করেন ফরিদা আক্তার। অনুষ্ঠানের শুরুতেই সঞ্চালক ইয়ূথ লিডার আব্দুর রাশিদ বলেন, ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার-বাংলাদেশ সারা দেশে নিরক্ষরতা দূরীকরণ আন্দোলন শুরু করেছে। গৌরীপুর ইউনিটও এই আন্দোলনে অংশগ্রহণের মাধ্যমে এলাকার নিরক্ষরতা দূর করতে চায়। এজন্য উপস্থিত অভিভাবক ও অতিথিদের কাছে সহযোগিতার আহ্বান জানানো হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সান্দেরসাঠিয়া মডেল হাইস্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক প্রমোদ চন্দ্র ভৌমিক, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চন্দপাড়া মুক্ত স্কাউটের সভাপতি বরুণ চন্দ্র দাশ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, এরকম একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে পেরে আমি সত্যিই আনন্দিত, তোমরা নিজেদের লেখাপড়ার পাশাপাশি স্কুল পরিচালনা ও এলাকার উন্নয়নে কাজ করছো, দেশ গঠনে তোমাদের মত ছেলে-মেয়েদের ভূমিকাই অপরিসীম। বিশেষ অতিথি বলেন, আমি তোমাদের গণশিক্ষা আন্দোলনকে স্বাগত জানাই এবং সার্বিকভাবে সহযোগিতা করবো। তোমাদের স্বেচ্ছাশ্রমে দেশ থেকে নিরক্ষরতা দূরীভূত হোক এই প্রত্যাশা করি। বর্ণমালা স্কুলের পরিচালক বিদ্যুৎ কুমার নন্দী বলেন, আমরা ইয়ূথদের সহযোগিতায় এই স্কুল থেকে স্কাউটিং করে প্রধানমন্ত্রীর ৩টি ও রাষ্ট্রপতির ১টি পুরস্কার অর্জন করি। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সুনীল চন্দ্র ভৌমিক, সুজন মজুমদার, কিতাব আলী বশিরউদ্দিনসহ আরো অনেকে। সবশেষে সভাপতি হারুণ অর রশিদ স্কুলের ফলাফল যাতে আরো ভালো হয়, লেখাপড়ার মান যাতে আরো উন্নত হয় এবং গণশিক্ষা আন্দোলন বাস্তবায়নের প্রত্যাশায় অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

রিপোর্ট: মোঃ আঃ রাশিদ।

আমরা করব জয়-৬৬

Advertisements

One comment

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়েছে।