'প্রত্যাশা, প্রতিশ্রুতি ও কার্যক্রম' শীর্ষক কর্মশালা

yeh0010

ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গারের সদস্যদের সক্রিয় প্রচেষ্টায় জুন-জুলাই মাসে বেশ কিছু কর্মশালা পরিচালিত হয়। যেমন: ২১ জুলাই ২০০৫ ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলার নাসিরনগর আশুতোষ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও নাসিরনগর ডিগ্রী কলেজে প্রত্যাশা, প্রতিশ্রুতি এবং কার্যক্রম শীর্ষক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত কর্মশালায় বিদ্যালয়ের ৮ম-১০ম শ্রেণীর ৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। কর্মশালাটি আয়োজনের দায়িত্ব পালন করে ইয়ূথ লীডার প্রণব আচার্য্য।

গত ২-৬ই জুন পর্যন্ত নোয়াখালী সরকারি কলেজ ইউনিটের উদ্যোগে নোয়াখালী পেরিকল্যাণ উচ্চ বিদ্যালয়, জেলা স্কুল, নোয়াখালী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়, এম এ সাত্তার উচ্চ বিদ্যালয়ে ৪টি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালা গুলো পরিচালনা করে ইয়ূথ লীডার প্রণব, মাহবুব, অরুপ, আনিসুর, ফারজানা, রিয়াজ, রোদ্দুর। এতে চার শত ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে।

ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সামাজিক দায়বদ্ধতাবোধ সৃষ্টি করতে গত ২ ও ৩ জুলাই ২০০৫ বিষ্ণুপুর উইনিটের উদ্যোগে সাতক্ষীরার কালীগঞ্জ উপজেলার বিষ্ণুপুর প্রাণকৃষ্ণ স্মারক মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং ফতেপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ‘প্রত্যাশা, প্রতিশ্রুতি এবং কার্যক্রম’ শীর্ষক দুইটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রাণকৃষ্ণ স্মারক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪৭জন ফতেপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪১জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। কর্মশালা দু’টি আয়োজন করে ইয়ূথ লীডার শাওন হোসেন।

১৪ই জুন ২০০৫ ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুন্ডু উপজেলায় একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২০ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। এরপর সর্বসম্মতিক্রমে নাসিমা খানমকে কোঅর্ডিনেটর নির্বাচিত করে একটি কমিটি গঠিত হয়। কর্মশালাটি পরিচালনা করে ইয়ূথ লীডার রকিব আহমেদ রনি।

১৭ই জুন ২০০৫ ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের উদ্যোগে মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলায় কাজলী গ্রামে প্রত্যাশা, প্রতিশ্রুতি এবং কার্যক্রম শীর্ষক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৮ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। ইউনিটটির কোঅর্ডিনেটর নির্বাচিত হয় মোঃ সেলিম রেজা। কর্মশালাটি পরিচালনা করে ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের সদস্য ফারুক হোসেন শাওন।

৬ই জুন ২০০৫ ঝিনাইদহ সদর ইউনিটের উদ্যোগে পাবনা জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার দাশুরিয়া গ্রামে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৮ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। উজ্জল খন্দকারকে এ ইউনিটের কোঅর্ডিনেটর নির্বাচিত করা হয়। ইয়ূথ লীডার রকিব আহমেদ রনী কর্মশালাটি পরিচালনা করে।

২রা জুন ২০০৫ গাওয়াইয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে একটি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উক্ত বিদ্যালয়ের ৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। এরপর নবম ও দশম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের দু’টি পৃথক ইউনিট গঠিত হয়। ইউনিট গঠনে সার্বিক সহায়তা করে ঢাকা সিটি ইউনিটের ইয়ূথ একটিভিস্ট রনি এবং সদস্য মুক্তা।

গত ১২ই জুন ২০০৫ লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার গরীবুল্লাহ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় উক্ত বিদ্যালয়ের ৮ম-১০ম শ্রেণীর ৯০ জন ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। ইয়ূথ লীডার সিপন এই কর্মশালাটি পরিচালনা করে।

চারঘাট মহিলা কলেজের কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয় গত ৭ জুলাই। এতে ৪০ জন ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করে। কর্মশালা শেষে শিলাকে কোঅর্ডিনেটর করে ইউনিট গঠিত হয়। এছাড়া ইউনিট সদস্য হিসেবে যারা দায়িত্ব গ্রহণ করবে তারা হলেন ফুলঝুরি, লাকী, ডালিয়া, পাঁপড়ি, রোকেয়া, নাজনি রত্না, কানিজ, ফাতেমা, মেরী, শ্যামলী এবং রিতা। ইউনিট উপদেষ্টা হিসেবে রয়েছেন উক্ত কলেজের ইংরেজী শিক্ষক মোঃ শরিফুল ইসলাম।

রিপোর্ট: প্রণব, আশিকুল ইসলাম, ফারুক, সিপন, শাওন, রনি, সুমন আলী

আমরা করব জয়-৪৮

Advertisements